নারী শিক্ষা অনুচ্ছেদ রচনা।

শিক্ষা

মানুষের মনুষ্যত্ব বিকাশের জন্য শিক্ষার প্রয়োজন। মা হচ্ছে একজন সন্তানের প্রথম শিক্ষক। “আমাকে একজন শিক্ষিত মা দাও, আমি তোমাদের একটি শিক্ষিত জাতি দিব” নেপোলিয়ানের এই চিরস্মরণীয় কথার কথার প্রতিধ্বনি আজও বিশ্বব্যাপী অনুরণিত হচ্ছে।  বিশ্বের লক্ষ লক্ষ নারী বর্তমান সময়েও শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত। ফলে সন্তানের প্রথম শিক্ষকই থেকে যাচ্ছে শিক্ষার অন্তরালে। সন্তান শিক্ষিত না হলে স্বাভাবিকভাবেই জাতির ভবিষ্যৎ অন্ধকার। কেননা আজকের শিশু আগামী দিনের কর্ণধার। ফলে একটি দেশের সমাজ, রাষ্ট্রের উন্নয়ন ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় এমনকি ব্যক্তিগত উৎকর্ষের ক্ষেত্রেও নারী শিক্ষার প্রয়োজন।  নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়া সারাজীবন নারী শিক্ষার জন্য আন্দোলন করে গেছেন। তিনি অনুধাবন করতে পেরেছিলেন পুরুষের পাশাপাশি নারীকেও হতে হবে শিক্ষিত ও স্বাবলম্বী। বাঙালি পুরুষ কখনো একাকী উন্নতির শিখরে আহরণ করতে পারবে না। আজ একবিংশ শতাব্দীর এই অগ্রগতির সময়েও আমাদের অধিকাংশ নারী শিক্ষাবঞ্চিত।  ফলে নারী শিক্ষার অগ্রগতির জন্য নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা একান্ত জরুরি। নারী নির্যাতন ও বাল্য বিবাহ বন্ধ করে নারীর শিক্ষা গ্রহণের পথকে সুগম করতে হবে। বয়স্ক নারীদের জন্য শিক্ষার ব্যবস্থা করার পাশাপাশি বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থা কে অবহিত করতে হবে। বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ সরবরাহ এবং সুবিধা বঞ্চিত নারীদের সহায়তা করতে হবে।  এছাড়াও এ বিষয়ে আগামী প্রজন্মকে সচেতন করতে প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থায় প্রয়োজনীয় পরিবর্তন আনতে হবে। সর্বোপরি, নারী শিক্ষার ব্যাপক অগ্রগতি সাধনের লক্ষ্যে সরকারসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে

2+

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *